ফিচার বাংলাদেশ ক্যাম্পাস সর্বশেষ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে লোক প্রশাসন দিবস পালন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে লোক প্রশাসন দিবস পালন

লোক প্রশাসন দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় লোক প্রশাসন বিভাগ।

আনন্দ শোভাযাত্রা, আলোচনাসভা, মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) লোক প্রশাসন দিবস পালিত হয়েছে। রবিবার ক্যাম্পাসের বীরশ্রেষ্ঠ মিলনায়তনে এ দিবসের আয়োজন করে লোক প্রশাসন বিভাগ।

দিবসটি উপলক্ষে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিভাগের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শুরু হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ শেষে কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে আলোচনাসভায় মিলিত হয়। আলোচনাসভায় বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. জুলফিকার হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী উপস্থিত ছিলেন। বিভাগের শিক্ষার্থী সাম্মি ও সাদিকের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, সম্মানিত অতিথি হিসেবে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. নাসিম বানু, লোক-প্রশাসন দিবস উদ্‌যাপন উপকমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এ কে এম মতিনুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা যদি বিষয়ভিত্তিক জ্ঞান, প্রেজেন্টেশন স্কিল এবং সাধারণ জ্ঞানের ওপর দক্ষ হয়ে ওঠে তবে আমি বাজি ধরে বলতে পারি একুশ শতকের বিশ্বে কোনো শিক্ষার্থীকে বেকার থাকতে হবে না। তাদের বিজয় সুনিশ্চিত। এ ছাড়াও তিনি শিক্ষার্থীদের গবেষণামুখী হিসেবে তৈরি করতে শিক্ষকদের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।

এ ছাড়াও আলোচনাসভায় ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মণ, বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, অধ্যাপক ড. বেগম রোকসানা মিলি, অধ্যাপক গিয়াস উদ্দিন, অধ্যাপক সেলিম, অধ্যাপক ড. লুত্ফর রহমান, সহযোগী অধ্যাপক ফখরুল ইসলাম, মুন্সী মুর্তজাসহ বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। শেষে বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

এর আগে লোক প্রশাসন দিবস উপলক্ষে বিভাগে নানা কর্মসূচি পালিত হয়। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান, পিঠা উৎসব এবং আগামীকাল সোমবার বিভাগে স্থানীয় সরকার বিষয়ের ওপর একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। বিভাগের একাডেমি সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এই দিনে লোক প্রশাসন দিবস হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

 

Comments