ফিচার বাংলাদেশ সর্বশেষ তথ্য-প্রযুক্তি শিক্ষা

খোকসায় সপ্তাহব্যাপী বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন

খোকসায় সপ্তাহব্যাপী বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন

কুষ্টিয়া -৪ আসনের সাংসদ ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জ বলেন,  ক্ষুদে বিজ্ঞানীদের হাতেই সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা হবে। স্ব-স্ব অবস্থা থেকে মেধাকে কাজে লাগিয়ে দেশকে উন্নয়নে এগিয়ে আসতে হবে। বিজ্ঞানের জয়যাত্রায় আজকে আমরা উন্নয়নের স্বর্ণশিখরে উপস্থিত হতে পারব। প্রতিটা প্রাণীর ক্ষমতা প্রয়োগ করে দেশের উন্নয়নে এগিয়ে আসি। বর্তমান বাঙ্গালীদের ইমারজেন্সি টাইগার বলে খ্যাতি অর্জন করেছে বিশ্বের দরবারে।

বুধবার সকালে খোকসা সরকারি কলেজ অডিটোরিয়ামে ৪০ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাদিয়া জেরিন এর সভাপতিত্বে উদ্ভোধনী মেলার বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খোকসা থানার অফিসার ইনচার্জ এবিএম মেহেদী মাসুদ, খোকসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বেতবেরিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাবুল আক্তার, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা গোপেশ চন্দ্র সাহা প্রমুখও।

 

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলায় ৪০ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ জাতীয় বিজ্ঞান মেলার শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, খোকসা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ মোহাম্মদ জহুরুল হক, খোকসা আবু তালেব ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, বিশিষ্ট শিল্পপতি রাধা টেক্সটাইলের মালিক প্রোপাইটার রানা সাহেব। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান গুণ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন উপজেলা সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান। বিজ্ঞানমনস্ক বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের উপস্থাপনায় প্রায় ১০ টি স্টল ও বিজ্ঞান মেলায় শোভা পায়। বিজ্ঞান মেলা উদ্বোধনের পর প্রধান অতিথি ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ বিজ্ঞান মেলার স্টলগুলো পরিদর্শন করেন।

উপজেলা বিজ্ঞান মেলায় উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী শিক্ষক অভিভাবক ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা কোন উক্ত মেলায় উপস্থিত ছিলেন। এ মেলা ১ সপ্তাহ পর্যন্ত প্রদর্শিত হবে খোকসা সরকারি কলেজের অডিটরিয়ামে। জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সহযোগিতায় ও খোকসা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সপ্তাহব্যাপী এ মেলায় নতুন বিজ্ঞানী আবিষ্কার হবে বলে স্থানীয় আয়োজকরা মনে করেন।

Comments