ফিচার বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক ক্যাম্পাস সর্বশেষ

থমথমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, সংঘর্ষের আশঙ্কা

থমথমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, সংঘর্ষের আশঙ্কা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ক্যাম্পাসে থমথমে বিরাজ করছে। যে কোনো মূহুর্তে সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। নির্বাচনকে ঘিরে ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও।

ভোটে অনিয়ম, কারচুপি, ব্যালট পেপার ছিনতাই, জালভোট ও ছাত্রলীগের আধিপত্যের অভিযোগ তুলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচন বর্জন করেছে প্রগতিশীল বামজোট, ছাত্রদলসহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন সমর্থিত প্যানেল এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। পাশাপাশি আগামীকাল মঙ্গলবার (১২ মার্চ) থেকে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন তারা। এসময় সব ক্লাস বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন তারা।

উপাচার্যের পদত্যাগ ও ডাকসুর পুননির্বাচনের দাবিতে ভিসির বাসভবন ঘেরাও করেছে ছাত্রদল। সেখানে অবস্থান নিয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও। এছাড়া ওই এলাকায় ছাত্রলীগের কিছু কর্মীদের অবস্থান নিতে দেখা গেছে। এই মুহূর্তে ঢাবি এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে প্রগতিশীল বামজোট, ছাত্র ফেডারেশন ও কোটা আন্দোলনসহ বিভিন্ন পদের স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পক্ষ থেকে ভোট প্রত্যাখান করেন বামজোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী।

এসময় অন্য প্যানেলের প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। ছাত্রদলের প্রতিনিধিরাও এসময় মধুর ক্যান্টিনে উপস্থিত থেকে সমর্থন দেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিটন নন্দী বলেন, আমরা এই প্রহসন ও জালিয়াতির নির্বাচনকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি। লিটন নন্দী নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করার পাশাপাশি উপাচার্যের পদত্যাগ ও নতুন নির্বাচনের দাবি জানিয়ে বলেন, নির্বাচনের নতুন পরিচালনা কমিটি গঠন, একাডেমিক ভবনে ভোট কেন্দ্র স্থাপন এবং স্বচ্ছ ব্যালট বাক্সে ভোট গ্রহণ করতে হবে।

Comments