ফিচার বাংলাদেশ সর্বশেষ তথ্য-প্রযুক্তি আইন-আদালত

দেশে বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ আনায় নিষেধাজ্ঞা

দেশে বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ আনায় নিষেধাজ্ঞা

পাঁচ মাসের মধ্যে বোয়িংয়ের তৈরি দুটি ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে উদ্বেগের মধ্যে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষও (বেবিচক) এ বিষয়ে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে। বুধবার প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, আপাতত এই মডেলের কোনো উড়োজাহাজ বাংলাদেশের এয়ারলাইন্সগুলো কিনে কিংবা ভাড়ায় চালাতে পারবে না।

বেবিচক বলছে, লায়ন এয়ার ও ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের দুটি নতুন বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ দুর্ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের কোনো এয়ারলাইন্সগুলোকে ওই মডেলের উড়োজাহাজ কেনা বা লিজ নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে না।

বেবিচকের পরিচালক চৌধুরী এম জিয়াউল কবির বলেন, ‘পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত দেশে বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ মডেলের কোনো এয়ারক্রাফট আনা যাবে না’।

জানা যায়, এই মুহূর্তে বাংলাদেশের কোনো বিমান পরিবহন সংস্থার বহরে বোয়িংয়ের সর্বাধুনিক উড়োজাহাজ ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ নেই। তবে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি বেসরকারি ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স দেশে প্রথমবারের মত এই মডেলের একটি এয়ারক্রাফট আনার ঘোষণা দেয়। ভাড়ায় পরিচালনার জন্য ইতোমধ্যে বোয়িং-এর সঙ্গে চুক্তিও করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

জানা যায়, বিভিন্ন দেশের অন্তত পাঁচ হাজার ম্যাক্সের অর্ডার রয়েছে বোয়িংয়ের হাতে। সেগুলো আপাতত স্থগিত করা হলেও বাতিল করা হয়নি।

মার্কিন কোম্পানি বোয়িংয়ের সফল ৭৩৭ সিরিজের সর্বশেষ মডেলটি হচ্ছে ম্যাক্স। বাণিজ্যিকভাবে এ উড়োজাহাজ দিয়ে ফ্লাইট চালানো শুরু হয় ২০১৭ সালে। দুই বছর যেতে না যেতেই প্রথমবারের মত বড় ধরনের দুর্ঘটনায় পড়ে এই উড়োজাহাজ। গত ২৯ অক্টোবর জাকার্তার কাছে জাভা সাগরে লায়ন এয়ারের একটি বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ বিধ্বস্ত হলে ১৮৯ আরোহীর সবাই নিহত হন।

এর পাঁচ মাসের মাথায় রোববার ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৫৭ জন আরোহীর সবাই নিহত হলে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ তৈরি হয়।

দুই দুর্ঘটনার কারণ একই কি না- তা এখনও জানা যায়নি। তবে দুটি উড়োজাহাজই ছিল নতুন, আর সেগুলো বিধ্বস্ত হয় উড্ডয়নের অল্প সময়ের মধ্যে।

এই পরিস্থিতিতে একের পর এক বিভিন্ন এয়ারলাইনস বহরে থাকা ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ সিরিজের উড়োজাহাজ গ্রাউন্ডেড করেছে। এর মধ্যে সিঙ্গাপুর, চীন, ইন্দোনেশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, মঙ্গোলিয়া ও অস্ট্রেলিয়া রয়েছে। এ ছাড়া ইথিওপিয়ান এয়ারলাইনস, ব্রিটিশ কেইম্যান এয়ারওয়েজ, সাউথ আফ্রিকার কোমএয়ার, ব্রাজিলের গোল এয়ারলাইনস, মেক্সিকোর অ্যারোমেক্সিকো ও আর্জেন্টিনার অ্যারোলিনেয়াস আর্জেন্টিনাস, নরওয়েজিয়ান এয়ার, টুই এয়ারওয়েজ, শেনজেন এয়ারলাইনস, এয়ার চায়না, চায়না ইস্টার্ন এয়ারলাইনস, চায়না সাউদার্ন, হাইনান এয়ারলাইনস, সাংহাই এয়ারলাইনস, জিংমেন এয়ারলাইনস, শ্যানডং এয়ারলাইনস, ওকে এয়ারওয়েজ, কুনমিং এয়ারলাইনস, গরুড় ইন্দোনেশিয়া, লায়ন এয়ার ও সিল্ক এয়ার তাদের বহরের বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স উড়োজাহাজের সব ফ্লাইট স্থগিত করেছে। অসংখ্য এয়ারলাইনস বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স সিরিজের দেয়া অর্ডার বাতিল করতে শুরু করেছে।

Comments