ফিচার বাংলাদেশ সর্বশেষ জীবন-শিল্প আইন-আদালত শিক্ষা

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যাচ্ছেন ননএমপিও শিক্ষকরা

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যাচ্ছেন ননএমপিও শিক্ষকরা

এমপিওভুক্তির দাবিতে পূর্বঘোষিত ১৩ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা স্থগিত করা হয়েছে। ১৩ মার্চের পরিবর্তে আগামী ২০ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জমায়েত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা করবেন ননএমপিও শিক্ষকরা। ওইদিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ না হলে প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান নেবেন তারা।

রোববার ননএমপিও শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে ১৩ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা ঘোষণা করা হয়েছিলো।

গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার বলেন, ১২ মার্চ থেকে ১৮ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের কর্মসূচি রয়েছে। এছাড়া উত্তরাঞ্চলে উপজেলা নির্বাচনে শিক্ষকরা দায়িত্বে থাকায় পূর্ব নির্ধারিত ১৩ মার্চের কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। আগামী ২০ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জমায়েত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা করবেন ননএমপিও শিক্ষকরা। ওইদিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ না হলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ফিরে এসে অবস্থান নেবেন তারা।

গত বছরের ৭ জুন সংসদে উপস্থাপিত বাজেটে এমপিওভুক্তির কোনো বরাদ্দ না থাকায় ১০ জুন থেকে লাগাতার আন্দোলন শুরু করেন ননএমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। এমপিওভুক্তির দাবিতে গত জুন-জুলাইয়ে ঝড়-বৃষ্টির মধ্যেই টানা ৩২ দিন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান ধর্মঘট ও আমরণ অনশন করেন শিক্ষকরা। ১১ জুলাই প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাসের কথা পৌঁছে দিয়ে ননএমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের অনশন ভাঙান চার বিশিষ্টজন।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে টানা ৩২ দিন আন্দোলন করেন শিক্ষকরা। এরমধ্যে ১৭ দিন ছিলেন আমরণ অনশনে। ওই সময়ে দাবি আদায়ে আমরণ অনশন ছাড়া রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, শিক্ষা ও অর্থমন্ত্রী, সংসদ সদস্যদের কাছে স্মারকলিপি দেন তারা।

এমপিওভুক্তির ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী সংসদে কথা বলেন, বঙ্গভবন থেকে এ ব্যাপারে ‘বিধিগত’ ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেন রাষ্ট্রপতি। শিক্ষামন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রীও এ নিয়ে মুখ খুলেছিলেন। সংসদ সদস্যরাও এ নিয়ে সংসদে আলোচনা করেন।

Comments