ফিচার বাংলাদেশ সর্বশেষ শিক্ষা চাকরির বাজার

পয়ত্রিশোর্ধ্ব শতাধিক শিক্ষকের পদ সংরক্ষণের নির্দেশ হাইকোর্টের

পয়ত্রিশোর্ধ্ব শতাধিক শিক্ষকের পদ সংরক্ষণের নির্দেশ হাইকোর্টের

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগে নিবন্ধন সনদ পাওয়া ১০৫ জনের পদ সংরক্ষণ করতে অন্তবর্তীকালীন নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। রিট চলাকালীন সময় পর্যন্ত এ পদ সংরক্ষণ করতে হবে। একইসঙ্গে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যায়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) জনবল কাঠামো নীতিমালা ২০১৮ এর অধীন শিক্ষক নিয়োগের বয়স ৩৫ বছর নির্ধারণ কেন অবৈধ হবে না জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে। পৃথক রুলে ওই নীতিমালার জারির আগে এনটিসিআরএ’র নিবন্ধন সনদ পাওয়া ৩৫ বছর উর্ধ্বদের বৈধ প্রার্থী হিসেবে গণ্য করার নির্দেশ কেন দেয়া হবে না তার কারণও জানতে চেয়েছেন আদালত।

একটি রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে গতকাল বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। গাইবান্ধার এটিএম শরিফুল ইসলাম, মাগুরার মো. আয়ুব আলী, পিরোজপুরের শংকর কুমার মজুমদার, গাইবান্ধার আব্দুর রউফ, ঝিনাইদহের মো. হাবিবুর রহমান ও সিরাজগঞ্জের মো. রাশেদুল হাসানসহ ১০৫ জন শিক্ষক রিট আবেদনটি দায়ের করেন। রিটে জনবল কাঠামো নীতিমালার ১১ এর ৬ ধারার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করেন তারা।

শিক্ষা সচিব ও এনটিআরসিএ’র চেয়ারম্যানকে চার সপ্তাহের মধ্যে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্যাহ মিয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আবদুল্লাহ আল বাশার।

গত ১৮ ডিসেম্বর বেসরকারি স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানে শুন্য পদে নিয়েগে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এনটিআরসিএ। এতে বলা হয়, গত ১২ জুন যাদের বয়স ৩৫ অথবা তার কম এবং জনবল কাঠামো এবং এমপিও নীতিমালা ২০১৮ এর অনুযায়ী অন্যান্য শর্ত পূরণ করবে শুধু তারাই শুন্যপদে আবেদন করতে পারবেন। এ নীতিমালার ১১ এর ৬ ধারায় ৩৫ বছর বয়সেরর শর্তের বিষয়টি রয়েছে। এই শর্তের কারণে ৩৫ উর্ধ্ব নিবন্ধন সনদ পাওয়া শিক্ষকরা আবেদন করতে পারছিলেন না।

Comments