ফিচার বাংলাদেশ সর্বশেষ মতামত

বাংলাদেশকে নিয়ে কটাক্ষ আফ্রিদির

বাংলাদেশকে নিয়ে কটাক্ষ আফ্রিদির

বাংলদেশের ক্রিকেট নিয়ে কটাক্ষ করেছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি। সম্প্রতি এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে খুব নিচু স্তরের কথা বলছেন আফ্রিদি। আরব আমিরাতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চলমান পাকিস্তানের সিরিজের জন্য পিসিবি বিশ্রাম দিয়েছেন ৬ জন পাকিস্তানী ক্রিকেটারকে। যাদের মধ্যে রয়েছেন সরফরাজও। এমন একটি সিরিজের আগে এই গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দেয়া যুক্তিযুক্ত হয়েছে কি না?

 

এ নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আফ্রিদির কাছে জানতে চাওয়া হয়। তখন আফ্রিদি বাংলাদেশের প্রসঙ্গ টেনে আনেন এবং তার বক্তব্যে বাংলাদেশকে খুব ছোট করে উপস্থাপন করেন।

তখন আফ্রিদি বলেন, দেখুন, সিরিজটা যদি বাংলাদেশ বা জিম্বাবুয়ের মতো র‍্যাংকিংয়ের ষষ্ঠ-সপ্তম বা অষ্টম দলের সঙ্গে হতো, তাহলে না হয় বোঝা যেত যে, বিশ্বকাপের আগে দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দেয়ার যৌক্তিকতা আছে; কিন্তু সিরিজটা অস্ট্রেলিয়ার মতো শক্তিশালী এক দলের সঙ্গে। বিশ্বকাপের আগে এমন শক্তিশালী দলের সঙ্গে খেললে ওই সব গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্সের কারণেই হয়তো আমরা বেশকিছু ম্যাচ জিততাম, যেটা বিশ্বকাপের আগে আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিত। আমার মনে হয় তারা দলের সঙ্গে থাকলেই ভালো হতো। এমন তো না যে তারা ১৫-২০ বছর ক্রিকেট খেলেছে, তারাও তো কয়েক দিন আগে থেকেই খেলা শুরু করেছে। তাই তাদের দলে রাখলেই বোধহয় ভালো হতো।’

ইচ্ছা করেই এবং স্বজ্ঞানে আফ্রিদি তার বক্তব্যে বাংলাদেশকে টেনে দেশের ক্রিকেটকে ছোট করে বক্তব্য দিয়েছেন। কারণ, সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিচার করলেও আফ্রিদির এই বক্তব্য কোনোভাবেই মানায় না। এই তো মাত্র কিছুদিন আগেও এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের কাছে অনেক ম্যাচ হেরেছে পাকিস্তান। এসব লজ্জাজনক পরাজয়ের কথা হয়তো বেমালুম ভুলে গেছেন আফ্রিদি কিংবা অন্তরের কোনে বাংলাদেশ নিয়ে পুষে রাখা বিদ্বেষ থেকেই হয়তো এই দেশের ক্রিকেটকে এমন কটাক্ষ করে কথা বলতে পারলেন তিনি।

Comments