ফিচার বাংলাদেশ সর্বশেষ মতামত চাকরির বাজার

বাতিল হচ্ছে ১৮৪ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিও

বাতিল হচ্ছে ১৮৪ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিও

দেশের ১৮৪ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি ও শিক্ষকদের এমপিও বাতিলের সুপারিশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। নিয়োগ পাওয়া শিক্ষকদের যোগদানে বাধা দেওয়াসহ নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির কারণে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে এনটিআরসিএ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান এস এম আশফাক হুসেন বলেন, ‘১৮৪ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অ্যাডেমিক স্বীকৃতি ও এমপিও বাতিল চেয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগে তালিকা পাঠিয়েছি।’

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চাহিদা অনুযায়ী বিভিন্ন বিষয়ের শিক্ষক নিয়োগ দেয় এনটিআরসিএ। কিন্তু নানা কারণে নিয়োগ পাওয়া শিক্ষকদের যোগদান করতে দিচ্ছে না প্রতিষ্ঠানগুলো। কোথাও যোগদান করতে দিতে সম্মত হলেও লাখ লাখ টাকা দাবি করা হচ্ছে। এছাড়া কোনও কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্যাটার্ন এর বাইরে চাহিদা দিয়ে শিক্ষক চাইলে সেসব প্রতিষ্ঠানেও শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তারাও শিক্ষকদের যোগদান করতে দিচ্ছে না। কারণ হিসেবে জানা গেছে, প্যাটার্নের বাইরে নিয়োগ দেওয়া শিক্ষকদের বেতন-ভাতা দিতে হবে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে।

এসব বিষয়ে এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান বলেন, ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেওয়া চাহিদা অনুযায়ী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। প্যাটার্ন ঠিক রেখে যেসব প্রতিষ্ঠান শিক্ষক নিয়োগ দিয়েছে, তারা সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে এমপিওভুক্ত করতে পারবেন। যারা প্যাটার্নের বাইরে নিয়োগ দিয়েছেন, তারা প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষকের বেতন-ভাতা দেবেন। যদি কোনও শিক্ষক নিয়োগ না পেয়ে থাকেন, তাহলে আমার কাছে আসলে তার যোগদান নিশ্চিত করে দেওয়া হবে।’

গত বছরের ১২ জুন জারি করা বেসরকারি স্কুল-কলেজের এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামোর ১৮.১ এর (ঘ) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, প্রতিষ্ঠান কর্তৃক এনটিআরসিএতে শিক্ষক চাহিদা দিলে উক্ত পদে মনোনীত প্রার্থীকে নিয়োগ দিতে হবে। প্যাটার্নের অতিরিক্ত চাহিদা দিলে সেই শিক্ষক কর্মচারীদের শতভাগ বেতন-ভাতা প্রতিষ্ঠান থেকে নির্বাহ করতে হবে। এর ব্যত্যয় ঘটলে প্রতিষ্ঠানপ্রধানের বেতন ভাতা স্থগিত বা বাতিল করা হবে এবং পরিচালনা কমিটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments