ফিচার বাংলাদেশ ক্যাম্পাস সর্বশেষ নারী

বান্ধবীদেরও কিছু জানাননি সেই জাবি ছাত্রী!

বান্ধবীদেরও কিছু জানাননি সেই জাবি ছাত্রী!

শনিবার দিবাগত রাতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের একটি কক্ষের তালাবদ্ধ ট্রাঙ্ক থেকে নবজাতক এক শিশু উদ্ধারের ঘটনা ঘটে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশুটির মৃত্যু হয়। কিন্তু এর আগ পর্যন্ত ওই ছাত্রীর প্রেগনেন্সির বিষয়টি রুমমেট ও পাশের রুমমেটের কেউই বুঝতে পারেনি।

সহপাঠীরা জানিয়েছেন, ওই ছাত্রী হলে সন্তান জন্ম দেওয়ার দুইদিন আগেও ক্লাস করেছেন। সব সময় চাদর মুড়িয়ে ক্লাসে যেতেন বলে কেউই টের পায়নি তার প্রেগনেন্সির বিষয়টি। এদিকে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের প্রভোস্ট জানিয়েছেন, ওই শিক্ষার্থী সব সময় চাঁদর মুড়িয়ে থাকত বিধায় মেয়েটি সন্তানসম্ভবা হওয়ার খবরটি কখনো নজরে আসেনি আমাদের।

হলে সন্তান প্রসবের পর থেকে বেশ তোলপাড় শুরু হয়েছে ক্যাম্পাসে। পাশের রুমমেটসহ তার কয়েকজন সহপাঠী এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। কেউ কেউ জানিয়েছেন যে, ওই ছাত্রীর প্রেগনেন্সির ঘটনা তারা ঘুনাক্ষরেও জানতেন না। এক সহপাঠী জানান, ও নিয়মিত ক্লাস করত। কখনো ওর কোনও শারীরিক পরিবর্তন চোখে পড়েনি। সব সময় চাদর মুড়ি দিয়ে ক্লাসে আসত।

এছাড়াও অন্য এক সহপাঠী বলেন, ও অনেক ধৈর্যশীল একটা মেয়ে। হলে একা একা সন্তান জন্ম দিয়েছে। সন্তান প্রসবের পর ব্যাথায় কাতর হয়ে পড়ে। পরে বাধ্য হয়ে বিষয়টি রুমমেটকে জানায়। আমরা কেউই বিষয়টি আগে জানতাম না।

শনিবার বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের একটি কক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের এক ছাত্রী সন্তান জন্ম দেন। ওই ছাত্রী তার পেটের ব্যাথা সইতে না পেরে বান্ধবী ও হল প্রশাসনকে প্রসব বেদনার কথা জানান। পরে তাকে দ্রুততার সঙ্গে এনাম মেডিকেলে নেওয়া হয়। কিন্তু ওই ছাত্রী তার সন্তানকে ট্রাংকে তালাবদ্ধ করার বিষয়টি গোপন রাখে। পরে বাচ্চার কান্নার আওয়াজ পেলে অন্যান্য ছাত্রীরা বিষয়টি হল প্রশাসনকে অবগত করেন। বিষয়টি হল প্রশাসন জানা মাত্র রুমের একটি ট্রাংকের তালা ভেঙে ওই নবজাতককে উদ্ধার করে মেডিকেলে নিলে সেখানে শিশুটি মারা যায়।

হলের প্রাধ্যক্ষ প্রফেসর মুজিবর রহমান জানান, ঘটনা সম্পর্কে জানা মাত্র হলে যাই। ছাত্রীরা বলছিল, হল থেকে বাচ্চা শিশুর কান্নার আওয়াজ শোনা যাচ্ছে। পরে ট্রাংকের তালা ভেঙে শিশুটিকে মেডিকেলে নিলে সেখানে শিশুটি মারা যায়। এঘটনায় চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে হবে বলেও জানান বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা হল প্রাধ্যক্ষ।

Comments