ফিচার বাংলাদেশ সর্বশেষ জীবন-শিল্প আইন-আদালত

মন্ত্রীর সঙ্গে এসপি’র ঝগড়া!

মন্ত্রীর সঙ্গে এসপি’র ঝগড়া!

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ। বেশ আলোচিত-সামালোচিত একটি নাম। প্রথমবার আলোচনায় এসেছিলেন বিরোধী দলের এমপিকে পিটিয়ে। এবার আলোচনায় আসলেন খোদ মন্ত্রীকে নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে। গতকাল রোববার নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা ছিল। এ সভায় এসপি হারুন বলেন, মন্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করে তিনি চাঁদাবাজি রোধ করেছেন। তার এই এক কথাতেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সভায় উপস্থিত থাকা প্রায় সকলে।

সভায় এসপি হারুন বলেন, নৌপথে দৈনিক লাখ লাখ টাকা চাঁদা তোলা হচ্ছে। এই চাঁদাবাজি রোধ করার জন্য এক মন্ত্রীর সঙ্গে আমার ঝগড়া করতে হয়েছে। চাঁদাবাজদের দৌরাত্ম্য বেড়েই চলছিল। এ বিষয়ে নৌপরিবহনমন্ত্রীর সঙ্গেও কথা হয়েছে। অবশেষে আমরা সেই চাঁদাবাজি বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছি।

তিনি আরো বলেন, এই জেলার সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে মাদক। বন্দর, ফতুল্লা, রূপগঞ্জ সব স্থানে মাদক বিক্রি হচ্ছে। আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় থেকে মাদক বিক্রি চালিয়ে যাবেন, তা হতে দেবো না।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, উপজেলা নির্বাচন ঘিরে কাউকে কোনো প্রকারের অরাজকতা করতে দেওয়া হবে না। এই নির্বাচনকে ঘিরে কেউ সংসদ নির্বাচন করে যাবেন, সেটা হবে না। এই কথা ভুলে যান।

রোববার দুপুরে জেলা সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এ সভার সভাপতি ছিলেন জেলা প্রশাসক রাব্বি মিয়া। এসময় পুলিশ সুপার ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জসিম উদ্দন হায়দার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মনিরুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল, সরকারি তোলারাম কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর বেলা রাণী সিংহ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, জেলা পিপি, জেলার বিভিন্ন সরকারি দফতরের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা।

Comments