ফিচার বাংলাদেশ সর্বশেষ আইন-আদালত শিক্ষা চাকরির বাজার

শিক্ষকদের গ্রেড সমস্যার সমাধান ২০ মার্চের মধ্যে

শিক্ষকদের গ্রেড সমস্যার সমাধান ২০ মার্চের মধ্যে

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম আল হোসেন। তিনি জানিয়েছেন, সহকারী শিক্ষকদের বঞ্চিত করে বেতন আপগ্রেডের কোনো ঘোষণা আসবে না।

সচিব বলেন, ১২তম গ্রেডের প্রস্তাবনা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। এই বিষয়ে ২০ মার্চের মধ্যে খসড়া প্রস্তাবনা পাঠানোর জন্য একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এর সমাধান আসবে।

তিনি আরো বলেন, সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেডের দাবি যৌক্তিক এবং তা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ঘোষিত নির্বাচনী ইশতেহারে উল্লেখ রয়েছে। এ সময় সহকারী শিক্ষকদের আন্দোলনে না যাওয়ার আহবান জানান সচিব।

রোববার নারায়ণগঞ্জ জাতীয় গ্রন্থাগারে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ আশ্বাস দেন। শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ শামছুদ্দীন মাসুদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

এ ব্যাপারে শামছুদ্দীন মাসুদ আরো জানান, সচিবের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত ওই মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সাবেরা বেগম, জেলা সহকারী শিক্ষক নেতা সোয়েব তানভীরসহ নারায়ণগঞ্জ পিটিআই প্রশিক্ষণার্থীবৃন্দ উপস্থিতি ছিলেন।

সচিবের ওই আশ্বাস মেনে নিয়ে এর তার প্রতি যথাযথ সম্মান দেখিয়ে সংগঠনের পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত সহকারী শিক্ষকদের ঘোষিত সকল কর্মসূচি স্থগিত করা হয়।

এর আগে অনুমোদিত খসড়া বিধিমালায় বেতন প্রধান শিক্ষকের পরের ধাপ তথা ১১তম গ্রেড না দেয়ায় কর্মসূচি ঘোষণা করেন সহকারী শিক্ষকরা। ঘোষিত কর্মসূচি হিসেবে প্রাথমিকভাবে ১৩ মার্চ পর্যন্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করার কথা জানান তারা। তারও আগে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ১১ মার্চ সারাদেশে সংবাদ সম্মেলন করার কথা বলা হয়। পরে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ অনুষ্ঠানে (১৩ মার্চ ) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে সুস্পষ্ট ঘোষণা না আসলে ১৪ মার্চ সারাদেশে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি এবং পরে বৃহত্তর আন্দোলনের তারিখ ঘোষণা করার কথা জানান নেতারা।

Comments