ফিচার বাংলাদেশ রাজনীতি সর্বশেষ মতামত

হোসেনপুর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে আলোচনার শীর্ষে শাহ্ মাহবুবুল হক

হোসেনপুর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে আলোচনার শীর্ষে শাহ্ মাহবুবুল হক

সাধারণ মানুষদের কাছে এতো জনপ্রিয় হওয়ার কারন, তিনি ছাত্রজীবনের শুরু থেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে রাজনীতিতে যুক্ত হন। ১৯৭৮ সালে তিনি হোসেনপুর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৮৪ সালে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি রাজনৈতিক নেতা নয়, জননেতা হিসাবে হোসেনপুরের মানুষের মনে জায়গা করে নেন। ১৯৯১ সালে শাহেদল ইউনিয়নের সাধারন জনগণ উনাকে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন করতে বলায় তিনি রাজি না হলে ইউনিয়ের জনগণ তাঁর বাড়িতেই অনশন শুরু করে। তারপর তিনি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়ে সেই বছরেই তিনি হোসেনপুর উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের মাঝে সর্বোচ্চসংখ্যক ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা এই জননেতা ১৯৯৬ সালে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন, যা এখনো চলমান । জনগণের কাছে নিজের সততা, মেধা, যোগ্যতা এবং গণমানুষের নেতা হবার কারনে ১৯৯৬ সালে দ্বিতীয়বার চেয়ারম্যান হিসেবে প্রথমবারের চেয়ে বারের চেয়ে ৩গুন ভোট বেশি পেয়ে আবারও চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন। বিএনপি-জামাত জোটের নির্মম অত্যাচার ও বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা সাহসিকতার সাথে মোকাবেলা করে ২০০৩ সালে আবারো তিনি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন।

২০১৬ সালে চতুর্থবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে। কিশোরগঞ্জ জেলা ও উপজেলায় অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দেন। দায়িত্ববোধ ও সততার কারণে কিশোরগঞ্জ জেলা চেয়ারম্যান এসোসিয়েসনের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে সততা ও নিষ্ঠার সাথে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেন। তিনি শুধুমাত্র জননেতাই নন! একজন জনপ্রিয় ফুটবল খেলোয়াড় হিসাবেও হোসেনপুর উপজেলার মানুষের কাছে পরিচিত। সেজন্য তিনি উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তিনি দীর্ঘদিন যাবত দায়িত্ব পালন করে আসছেন। সাংস্কৃতিক জগতেও সমানভাবে বিচরণ, অভিনয় করেছেন ৫০ টিরও বেশি মঞ্চ নাটকে। জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য হিসেবে তিনি দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি বিভিন্ন স্কুল কলেজ এবং মসজিদ কমিটির সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি একাধারে খেলোয়ার এবং ক্রীড়া সংগঠক হিসেবে ব্যাপক সুনামের অধিকারী। সাংস্কৃতিক অঙ্গনেও আছে ব্যাপক সুনাম। সবকিছু বিবেচনা করে হোসেনপুরের সাধারণ জনগণ এবার উপজেলা চেয়ারম্যান হিসাবে পেতে চায় তাদের প্রিয় মাহবুব ভাইকে।

Comments